এমন দুটো নিয়ামত আছে, যে দুটো নিয়ামত পেয়েও অধিকাংশ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত

এমন দুটো নিয়ামত আছে, যে দুটো নিয়ামত পেয়েও অধিকাংশ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত

এই লকডাউনের সময় একশোটি মুভি দেখলাম। অবসর সময়টা বেশ ভালোই কাটছে।

কয়েকটি সিরিয়াল/এপিসোড দেখবো দেখবো ভাবছিলাম। আগে সময় পাইনি। এই লকডাউনে দেখলাম।

পাবজি, ফ্রি-ফায়ার গেইমগুলো আগে খেলার সময় পেতাম না। করোনার সময় সারাদিন খেলছি।

এই তিনটি উদাহরণ যাস্ট তিনটি নমুনা স্ট্যাটাস। লকডাউনের অবসর সময়গুলো মানুষ কিভাবে কাটাচ্ছে, সেটা নিয়ে তারা এভাবে স্ট্যাটাস দিচ্ছে। লকডাউনের অফুরন্ত সময় তাদেরকে শতো-শতো মুভি দেখার সুযোগ (!) করে দিয়েছে, নাটক-সিরিয়াল দেখার জন্য এখন আর সময়ের দিকে তাকানো লাগছে না।

অর্থাৎ, সময় কাটানোর জন্য মানুষজন মুভি/নাটক দেখছে, গেইম খেলছে।

তারমানে যারা এসব করছে, তারা দুটো নিয়ামতে ডুবে আছে।

• তারা করোনা আক্রান্ত হয়নি। তারা সুস্থ আছে।
• তাদের হাতে অফুরন্ত অবসর সময় আছে।

এখন দেখি, নবিজী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) তাদের ব্যাপারে কিছু বলছেন কি-না।

নবিজী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেন, "এমন দুটো নিয়ামত আছে, যে দুটো নিয়ামত পেয়েও অধিকাংশ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত। সেগুলো হলো- অবসর সময় এবং সুস্থতা।" [সহীহ বুখারী: ৬৪১২]

হাদীসটি পড়তে গিয়ে মনে হচ্ছে, নবিজী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) যেনো ঠিক এ সময়ের জন্যই এই কথাটি বলছেন! সুবহানাল্লাহ!

যারা করোনার সময় অফুরন্ত অবসর পেয়েও কাজে লাগাতে পারছেন না, উল্টো পাপাচারে লিপ্ত আছেন, তাদের জন্য এই হাদীসটি খুবই এলার্মিং।

যারা বই পড়তে পছন্দ করেন, এই অবসর সময়ে অন্তত একটা সীরাতগ্রন্থ (রাসূলের জীবনী) পড়ুন। হার্ডকপি ছাড়াও অনলাইনে শতো শতো সীরাতগ্রন্থের পিডিএফ আছে বাংলা, ইংরেজি, আরবি ভাষায়।

যারা ভিডিও দেখতে পছন্দ করেন, তারা অন্তত অনলাইনে ফ্রিতে একটা সীরাত কোর্স করুন। দেখুন না কী চমৎকারভাবে এগুলো সাজানো হয়েছে। অথবা ইমাম আন-নববীর (রাহিমাহুল্লাহ) চল্লিশ হাদীস নিয়েও বেশ ভালো ভালো কয়েকটি সিরিজ আছে, সেগুলো দেখুন।

এই অফুরন্ত অবসর সময়টা প্লিজ কাজে লাগান। করোনাও কেটে যাবে (ইন শা আল্লাহ), সময়ও কেটে যাবে। কিন্তু এই সময়ের ইলম, আমলগুলো থেকে যাবে।
সমাপ্ত

লেখাঃ আরিফুল ইসলাম (আল্লাহ্‌ তাকে উত্তম প্রতিদান দান করুন!)

আপনিও হোন ইসলামের প্রচারক ইন শা আল্লাহ ’ লেখাটি শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে!

Post a comment

0 Comments